You are here
Home > All Post

Sexual pursuit (যৌন সাধনা)

Sexual pursuit (যৌন সাধনা)

উপরক্ত নামটিতেই প্রতিয়মান হয় যে আজকের বিষয় মূলত যৌন সাধনা, আসলে যৌন সাধনা বলতে তান্ত্রিকতায় নির্দিষ্ট কোনো সাধনা নেই বা এর কোনো সাধনা হয় না। তবে আমরা এখানে এটিকে সাধনা বলার পিছনে অনেকগুলো কারন রয়েছে।

আমাদের বর্তমান দ্রুত ছুটে চলা সমাজ জীবনে একে অন্যের সাথে প্রতিনিয়ত প্রতিযোগিতায় লিপ্ত, কি ভাবে অনেক অনেক বেশি অর্থ, সন্মান, অধিপত্য বিস্তার করতে পারবো। আমরা এটি ভুলে যাই যে আমরা মানব, দুনিয়াতে আমাদের আসার ও এখানে টিকে থাকতে বা সকল কিছু অর্জনের পিছনে নির্দিষ্ট দুটি বিষয়কেই আর্বতন করা ছাড়া আমাদের অন্য কিছুই লক্ষ্য নয়, হতে পারেও না। আমাদের মনের মাঝে সামনে এগোনোর যে প্রবনতা কাজ করে সেটিকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে আমাদের মানব জন্মের মুল উদ্দেশ্যকেই আমরা অগ্রাহ্য করে চলছি।

আমরা কি কখনো ভেবেছি মানুষ হিসেবে আমরা জন্ম নিয়ে, এই পৃথিবীতে যাহা কিছুই করি না কেনো। সবকিছুর পিছনে ব্যক্তিগত স্বার্থ কিন্তু দুটাই, আর তা হলো পেটের ক্ষুধা, যৌন ক্ষুধা নিবারন করা। আর এ দুটি মেটাতে গিয়েই আমরা জরিয়ে পরছি হাজারো দুনিয়াবি বিষয়ে।

আমাদের বর্তমান জনসমিষ্টির ৮৫% মানুষ আজ যৌনায় সুখি নয়, অনেকেই হয়তো মনের ক্ষুধা মেটাতে একের অধিক যৌন সংগির সাথে মিলিত হচ্ছি ঠিকই কিন্তু এখানেও একক ভাবে তৃপ্তি হয়তো হচ্ছে, যৌনতা হচ্ছে না।

আমরা জানি, কোনো পুরুষ বা নারী যদি এই একটি বিষয় সুখি না হয়ে থাকে তবে তার দ্বারা কখনোই উন্নতির চরম স্পর্শ্য করা সম্ভব নয়। আমরা অনেক ক্ষেত্রেই দেখি পুরুষ শাষিত সমাজে আমরা নিজের চাহিদা মেটাতে নারী সমাগত হই ঠিকই, কিন্তু কখনই নারীটির তৃপ্তি বা তার চাহিদার দিকে নজর দেই না, নিজের অপৌঢ়ষ যৌনতার মিথ্যে অহমে তাকে শক্তি বলে দমিয়ে রাখি। যেখানে একটি সুষ্ঠ সুন্দর যৌন মিলন, যেমন একজন পুরুষকে তেমনি একটি নারীকেও দিতে পারে অনিন্দ স্বর্গীয় সুখ। আমাদের এই অধ্যায়ে আমরা আলোচনা করবো, কোনো প্রকার ক্ষতিকর কৃত্তিম ড্রাগ নিয়ে নিজের ও যৌন সংগির জীবন সংশয় না করে, কি ভাবে প্রাকৃতিক নিয়মে, কিছু যৌন কৌশল অবলম্বন করে নিজের ও যৌন সংগীর এই স্বর্গীয় সুধা আস্বাদনের উপায় পেতে পারি। প্রয়োজনে একান্ত্য ক্ষেত্রে তান্ত্রিক উপাচার অবলম্বনে আমরা সার্বিক সহযোগিতা করবো।

Sharing is caring!

Top
error: Content is protected !!