Sexual pursuit something rules (সহবাস/যৌন মিলনে কিছু করনীয়)

Sexual pursuit something rules (সহবাস/যৌন মিলনে কিছু করনীয়)

পূর্বযুগে পূর্বপুরুষগণ ধর্মভিরুতার কারনেই হোক বা অপ্রাপ্যতার কারনেই হোক সাধারন ভাবে অন্ধকারে যৌনক্রিয়া করতো কিন্তু বর্তমান সময়ে আমরা কাজটি করবো না। অবশ্যই যৌন মিলনের সময় ঘরে যথেষ্ট আলোর ব্যবস্থা রাখবো, পূর্বেকালের দিনে, দিনে বেলায় সহবাস করতো না কিন্তু এখন আমরা চাইলে দিনের যে কোন সময় যৌন সহবাস করতে পারি। এতো কোন সমস্যা নেই। যদি আপনি সঙ্গীর সাথে আলোচনার মাধ্যমে যৌনক্রিয়ার সময় নির্ধারন করে রাখেন তবে সেটির ক্ষেত্রে তেমন প্রয়োজন নেই কিন্তু একক ভাবে যদি সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন তবে অবশ্যই পরিধেয় বস্ত্র যেনো ঢিলে ঢালা গোছের হয়, এতে আপনার পোশাক পরিচ্ছেদ খুলতে আপনার বা আপনার সঙ্গীর অযথা সময় নষ্ট হবে না। একান্ত্য ভাবে মিলিত হওয়ার প্রথমিক পর্যায় কখনই হুট করে সঙ্গীর পোশাক পরিচ্ছেদ খুলে নিজেও উলঙ্গ হয়ে রতি ক্রিয়ায় মিলিত হতে যাবেন না। প্রথমে তাকে আদর করুন, যেমন শরীরের বিভিন্ন স্থানে চুমু দেওয়া, হাত বোলানো, স্তন মর্দন করার পাশা পাশি ধীরে ধীরে পোশাক খুলতে থাকুন যখন দেখবেন যৌন সঙ্গী কিছুটা উত্তেজিত এবং নিজেকে পরির্পূণরুপে আপনার উপর নেস্ত করেছে তখনই কেবল এই কাজটি করতে যাওয়া উচিৎ। পূর্ণ রতিক্রিয়ায় মত্ত হওয়ার পূর্বে অবশ্যই তার নিতম্ব, স্তন, বগল, তলপেট, জঙ্ঘা, কুচ, ঘাড়, পিঠ, ইত্যাদিতে আদর করুন, হাত বোলান, চুমু দিন, হালকা কামরও দিতে পারেন, আঙ্গুল দিয়ে যৌনাঙ্গে হালকা ভাবে ঘসতেও পারেন। এতে করে আপনার কামভাব যেমন বৃদ্ধি পাবে যৌন সঙ্গীরও কামউত্তেজনা চরমে উঠবে। বর্তমান সময় অনেকেই ওরাল সেক্স (মুখ মেহন/ জিহ্বা দিয়ে যৌনাঙ্গ চেটে দেওয়া) পছন্দ করে, আপনার পার্টনার যদি সেটিতে আগ্রহী হয়ে থাকে তবে তাকেও সে ভাবে আনন্দ দিতে পারেন। এটি প্রমানিত বিজ্ঞান যে একাজগুলোতে পার্টনার ৫০% এরও অধিক রতিক্রিয়া ছাড়াই যৌনতৃপ্তি পায়। সুতারাং এগুলোকে এড়িয়ে যাবেন না। হ্যা যদি আপনার ভিতরে কোন কারনে রুচির সমস্যা হয় বা তার যৌনাঙ্গে উৎকট গন্ধ থাকে তবে তাকে পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে আসতে বা দুজনে গিয়ে ধুয়ে আসতে পারেন, তবে কখনই যৌনাঙ্গ ধৌত করার সময় কোন সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার করবেন না। একটি কথা যেনে রাখা ভালো নারী যৌনাঙ্গ স্বভাবতই এক রকম গন্ধযুক্ত অনেকেই সেটা পছন্দ করে আবার অনেকেরই সেটা পছন্দ নাও হতে পারে, সে ক্ষেত্রে আপনি আঙ্গুল ব্যবহার করতে পারেন। এরপর ফাইনাল কাজ, রতিক্রিয়ায় মত্ত হওয়া, এখানে কয়েকটি জিনিস মনে রাখতে হবে, এগুলো খুব জরুরী, আর তা হলো, পুরুষের লিঙ্গ যখনি যোনিতে প্রবেশ করে হটাৎ আবহাওয়া পরিবর্তন হওয়াতে অর্থাৎ যোনীর ভিতরে গরম অনুভব হওয়াতে চাপের কারনে প্রথম স্টেজে দ্রুত বির্যপাত হতে পারে, এটি একটি পরম সত্য স্বাভাবিক ব্যপার, কিন্তু আপনাকে প্রথম সাবধান হতে হবে এখানেই যে বির্যপাত যেনো কোন ভাবে যোনীর ভিতরে না হয়, কারন আপনার বির্য যদি যোনীতে হয় সেই বির্য যোনীর রস এক সংগে মিশ্রিত হয়ে যে ক্যমিকেল তৈরী হয় সেটি লিঙ্গ উত্থানে বাধা সৃষ্টি করে প্রাকৃতিক ভাবেই বিষয়টি সৃষ্টি, যাতে বির্যপাতের পরেও নারী যোনীতে পুরুষাঙ্গ ঘর্ষন সৃষ্টি করতে না পারে। বিধায় আপনার যখনই প্রথম কয়েকবার লিঙ্গ চালনা করার পর মনে হবে বির্যপাত হবে তখন লিঙ্গ যোনীর বাইরে নিয়ে আসুন এবং বাইরে কোন ন্যাকরা বা টিস্যু বা পার্টনারের শরীরে বা তার মুখেও করতে পারেন এতে বাধা নেই কিন্তু কোনও ভাবে যোনীতে বির্যপাত আপনাকে এড়াতেই হবে।

আপনি বাইরে বির্যপাত করাতে লজ্জার কিছু নেই বরং এতে দুজনেই বেশি উপকৃত হবেন। এরপর লিঙ্গ পরিষ্কার করে সমস্ত বির্য মুছে ফেলার পর, পুনরায় যোনীতে লিঙ্গ প্রবেশ করান। দেখবেন এবার আর সহজেই বির্যপাত হবে না, লিঙ্গ চালনা করার সাথে সাথে অন্য কিছুতে খুব বেশি মনোযোগি হওয়ার প্রয়োজন নেই, এতেও আপনি দীর্ঘ্যক্ষন রতিক্রিয়ায় মত্ত থাকতে পারবেন। যদিও অধিকাংশ নারী লিঙ্গচালনার সাথে স্তন মর্দন পছন্দ করে তবে আপনি হালকা ভাবে সেটি করতে পারেন তবে অমনোযোগি ভাবে।

Sharing is caring!

Top
error: Content is protected !!